1. masudkhan89@yahoo.com : admin :
  2. mahabub.mk1@gmail.com : Mahbub Khan Akash : Mahbub Khan Akash
  3. kdalim142@gmail.com : ডালিম খান : ডালিম খান
বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ১০:৩৪ পূর্বাহ্ন

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ঐক্যবদ্ধ থেকে দায়িত্ব পালন করতে হবে: তথ্যমন্ত্রী

সাংবাদিকের নাম
  • আপডেট সময় : রবিবার, ২৩ মে, ২০২১
  • ৭৭ দেখেছেন

 

 

দেশ বিরোধীদের ষড়যন্ত্র প্রতিহত করতে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ঐক্যবদ্ধ হয়ে পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে সাংবাদিকদের অনুরোধ জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের। যারা কাজ করছেন তারাও সবাই মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার চেতনায় বিশ্বাসী। বাংলাদেশে ঘাপটি মেরে থাকা একটি পক্ষ কোনো ইস্যু পেলে সেটিকে আন্তর্জাতিকী করণের অপচেষ্টা করে। সেটি পুঁজি করে দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে। কোনো কর্মকাণ্ড যেন তাদের হাতে হাতিয়ার তুলে না দেয় সে ব্যাপারে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সাংবাদিকদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। কোনো সাংবাদিক যাতে ভবিষ্যতে হেনস্তার শিকার না হয়, সেবিষয়েও সবসময় সচেষ্ট থাকবে সরকার।

রোববার দুপুরে সচিবালয়ে নিজ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের শীর্ষ সংগঠন বিএফইউজে, জাতীয় প্রেসক্লাব, ডিইউজে, ডিআরইউ, বিএসআরএফ, বিজেসি ও বাংলাদেশ সম্পাদক ফোরাম নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন। আলোচনায় অংশ নেন প্রধানমন্ত্রীর সাবেক তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, বিএফইউজে’র সাবেক সভাপতি মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, ডিইউজে সভাপতি কুদ্দুস আফ্রাদ, বিএফইউজে’র ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মো. আব্দুল মজিদ, ডিইউজে সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ আলম খান তপু, বিজেসি সদস্য সচিব শাকিল আহমেদ, সম্পাদক ফোরামের আহ্বায়ক রফিকুল ইসলাম রতন প্রমুখ।

সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের জামিনে সন্তোষ প্রকাশ করে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী বলেন, তার জামিনে রাষ্ট্রপক্ষ কোনো বিরোধিতা করেনি অর্থাৎ রাষ্ট্রপক্ষ চেয়েছে তার জামিন হোক। এজন্য সাংবাদিকদের সাথে সন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি। তবে ঘটনাটি অবশ্যই অনভিপ্রেত ছিল, সেজন্য সাংবাদিকরা মনের ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এখন জামিন হয়েছে, সুতরাং অবশ্যই সাংবাদিকরা আবার আগের মতো পেশাগত কাজে ফেরত যাবেন সেটিই সকলের প্রত্যাশা।

তথ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিকতার উদাহরণ তুলে ধরে বলেন, সাংবাদিকবান্ধব প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা সাংবাদিকদের কল্যাণে এবং অবাধ তথ্যপ্রবাহ নিশ্চিত করার জন্য বহু পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন, তার হাতে গড়া সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের মাধ্যমে ইতোমধ্যেই কয়েক হাজার সাংবাদিক উপকৃত হয়েছেন। তার গঠিত তথ্য কমিশনের মাধ্যমে এ পর্যন্ত প্রায় ১ লাখ ২০ হাজার আবেদন নিস্পত্তি করা হয়েছে। নিয়ম অনুযায়ী তথ্যের জন্য আবেদনের পর কোনো ক্ষেত্রে যদি মন্ত্রণালয় তথ্য না দিয়ে থাকে, তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থাও কমিশন গ্রহণ করেছে।

প্রধানমন্ত্রীর সাবেক তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী উত্থাপিত অনিয়মিত পত্রিকায় বিজ্ঞাপন বন্ধের দাবির সঙ্গে একমত হয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, সেই পত্রিকাগুলোর ভৌতিক প্রচার সংখ্যা সংশোধনের কাজ চলছে, এজন্য সাংবাদিকরা সমর্থন দিয়েছেন। সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টকে আরো প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেওয়ার দাবিও অবশ্যই বিবেচ্য বলে তিনি মনে করেন।

সিনিয়র সাংবাদিক মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল ও ডিইউজে সভাপতি কুদ্দুস আফ্রাদের দাবির প্রেক্ষিতে গণমাধ্যমকর্মী আইনের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, আইন মন্ত্রণালয়ের দেওয়া অবজারভেশন অনুযায়ী ইতোমধ্যে আন্ত:মন্ত্রণালয় বৈঠক হয়েছে। বিষয়টি খুব দ্রুত সমপন্ন হবে। এটি পাস হলে রেডিও টেলিভিশন অর্থাৎ সল্ফপ্রচারের সাথে যুক্ত সাংবাদিকসহ সকল সাংবাদিকদের সুরক্ষা দেওয়া সম্ভব হবে।

সামাজিক যোগাযোগ এ শেয়ার করুন

একই বিভাগের আরও সংবাদ
© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব মুক্ত সংবাদ কর্তৃক সংরক্ষিত
Developer By Zorex Zira