1. masudkhan89@yahoo.com : admin :
  2. mahabub.mk1@gmail.com : Mahbub Khan Akash : Mahbub Khan Akash
  3. kdalim142@gmail.com : ডালিম খান : ডালিম খান
বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:৫৭ অপরাহ্ন

শিবপুরে রাজনৈতিক বিরোধের জের ধরে হামলা,উভয় পক্ষের ৩ জন আহত

শিবপুর প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৯৮ দেখেছেন

নরসিংদীর শিবপুরে রাজনৈতিক বিরোধের জের ধরে হামলা ও মারধরের ঘটনা ঘটেছে। এতে এক বৃদ্ধ নারীসহ তিনজন আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাত ১০টার দিকে উপজেলার যোশর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেনের বাড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলো যোশর গ্রামের মৃত বাবর আলীর ছেলে আলম মিয়া (৩৫), আলমের বৃদ্ধ মা ও রমিজ উদ্দিনের ছেলে ফারুক (৩৭)। আহতদেরকে শিবপুর ও রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।এবিষয়ে আলমের স্ত্রী বাদী হয়ে যোশর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেনসহ ৬ জনের নাম উল্লেখ করে শিবপুর মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে।

আহত আলম মিয়া জানান, গতকাল আমি শিবপুরে আওয়ামী লীগের সভা শেষে বাড়ীতে গেলে টিপু সুলতান আমাকে সাবেক চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন কাকার বাড়ীতে যাওয়ার জন্য ডাকেন। ফোনে চেয়ারম্যান কাকা কে না পেয়ে ওনার বাড়ীতে যাওয়া মাত্রই এলোপাতাড়ি ভাবে মারধর ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করেন তাঁরা। এ সময় আমার ডাকচিৎকারে বর্তমান চেয়ারম্যান রাসেল আহমেদ সহ আশপাশের লোকজন ছুটে এসে আমাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে শিবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

এই বিষয়ে যশোর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন জানান, ‘অনেক দিন ধরে আলম মিয়ার পারিবারিক কোন্দল চলছিল। একাধিকবার শালিস দরবারও হয়েছে। সে আমার ভাতিজির জামাই। গতকাল রাতে আমার বাড়ীর সামনে মারামারি করে ফারুক ও আলম আহত হয়েছে। ঘটনার সময় আমি বাড়ীতে ছিলাম না।’

এ বিষয়ে যশোর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান রাসেল আহমেদ জানান, সংবাদ পেয়ে আহত অবস্থায় সাবেক চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেনের বাড়ি থেকে আমরা তাকে উদ্ধার করি, হামলার কারণ জানেতে চাইলে আহত আলম মিয়া বলেছেন, গতকাল শিবপুরে আওয়ামী লীগের জনসভায় যাওয়ার কারণে তাঁর ওপর এই সন্ত্রাসী হামলা করা হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সামসুল আলম ভূঁইয়া রাখিল সংবাদ পেয়ে পরদিন সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আহত আলম মিয়াকে দেখতে গিয়ে জানান, আওয়ামী লীগের সভায় আসার কারণে যদি হামলা করা হয় হামলাকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শিবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সালাহউদ্দিন মিয়া বলেন, ‘এ ঘটনায় উভয় পক্ষের লোকজন আহত হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

সামাজিক যোগাযোগ এ শেয়ার করুন

একই বিভাগের আরও সংবাদ
© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব মুক্ত সংবাদ কর্তৃক সংরক্ষিত
Developer By Zorex Zira