ব্রেকিং নিউজ ::
শিবপুরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু স্মৃতিচারণ ও দোয়া মাহফিল শিবপুরে ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস উদযাপন উপলক্ষে যুবলীগের প্রস্তুতি সভা শিবপুরে ব্যবসায়ীকে ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা দেওয়ায় এলাকাবাসীর প্রতিবাদ সভা শিবপুর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বঙ্গমাতার  ৯২তম জন্মবার্ষিকী পালন জৈন্তাপুরে প্রাইভেট কার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পিতা ও শিশু কন্যার মৃত্যু,আহত ৩ শিবপুরে পুটিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী কৃষকলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত শিবপুরে হরিহরদী হাই স্কুল এন্ড কলেজের পক্ষ থেকে এমপি মোহনকে সংবর্ধনা শিবপুরে বিএনপির সাবেক মহাসচিব মান্নান ভূঁইয়ার ১২তম মৃত্যু বার্ষিকী পালন বৃক্ষরোপনে জাতীয় পুরস্কার পেল কাজী মফিজ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় মহাত্মা গান্ধী গোল্ডেন অ্যাওয়ার্ড পেলেন আলহাজ্ব মাহফুজুল হক টিপু
শ্বশুরবাড়ির লোকজনের নির্যাতনে প্রবাসীর মৃত্যু, ভিডিও ভাইরাল

শ্বশুরবাড়ির লোকজনের নির্যাতনে প্রবাসীর মৃত্যু, ভিডিও ভাইরাল

শ্বশুরবাড়ির লোকজনের নির্যাতনে প্রবাসীর মৃত্যু, ভিডিও ভাইরাল

 

কক্সবাজারের ঈদগাঁও এলাকায় শ্বশুরবাড়ির লোকজন এভাবে নির্যাতন করে জামাইকে। ছবি : সংগৃহীত
কক্সবাজার সদর উপজেলার ঈদগাঁও এলাকায় স্ত্রী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনের হাতে নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়ে মঞ্জুর আলম (৪৫) নামের এক প্রবাসীর মৃত্যু হয়েছে। আজ শনিবার বিকেলে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান তিনি।

নিহত মঞ্জুর আলম ঈদগাঁও কালিরছড়া এলাকার মৃত আব্দুল গণির ছেলে। এ ঘটনায় নিহতের দ্বিতীয় স্ত্রী রুনা আক্তারসহ আটজনকে আটক করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ঈদগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল হালিম জানান, আজ দুপুরে ঈদগাঁও-এর মাইজপাড়ায় দ্বিতীয় স্ত্রী রুনা আক্তারের বাবা, মা, ভাই বোনসহ বেশ কয়েকজন মিলে মঞ্জুর আলমকে মধ্যযুগীয় কায়দায় প্রকাশ্যে নির্মমভাবে নির্যাতন চালায়। ওই নির্যাতনের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে তা নজরে আসে পুলিশের। পরে পুলিশ সুপারের নির্দেশে গতকাল রাতেই নির্যাতনকারী স্ত্রী রুনা আক্তার, তাঁর বাবা, ভাইবোনসহ আটজনকে আটক করা হয়।

ওসি আরও জানান, এ ঘটনায় নিহত মঞ্জুর আলমের বড় ভাই গতকাল রাতে এ ঘটনায় হত্যাচেষ্টার মামলা করেন। আহত মঞ্জুর আলমকে এলাকাবাসী উদ্ধার করে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। আজ শনিবার মঞ্জুর আলমের অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে বিকেলে মঞ্জুর আলম মারা যান।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, নিহত মঞ্জুর আলম দীর্ঘদিন প্রবাসে কাটিয়েছেন। প্রবাস জীবনে যা আয় করেছেন তা দেশে অবস্থানরত তাঁর দ্বিতীয় স্ত্রী রুনা আক্তারের নামে পাঠাতেন। তাঁর স্ত্রী নিজের নামে কিনেছেন জমি। আর সেখানেই বানিয়েছেন বহুতল ভবনও। সম্প্রতি করোনা পরিস্থিতির কারণে ছুটিতে আসার পর আর বিদেশ যাওয়া হয়নি মঞ্জুর আলমের। এরই মধ্যে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক কলহ দেখা দেয়। স্বামীর সঙ্গে দূরত্ব বাড়াতে থাকেন স্ত্রী রুনা আক্তার। এক পর্যায়ে গতকাল শুক্রবার স্ত্রী রুনা আক্তার, তার বাবা-মা, ভাই-বোন মিলে দিন দুপুরে হত্যার উদ্দেশ্যে মঞ্জুর আলমকে নির্মমভাবে নির্যাতন চালায়।

সামাজিক যোগাযোগ এ শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© সকল স্বত্ব www.muktasangbad.com অনলাইন ভার্শন কর্তৃক সংরক্ষিত