ব্রেকিং নিউজ ::
রাতের আঁধারে কম্বলের ফেরিওয়ালা শিবপুরের শামীম গফুর নরসিংদী জেলা ছাত্রদলের নবগঠিত কমিটিকে শুভেচ্ছা জানিয়ে শিবপুরে আনন্দ মিছিল পুটিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সংবর্ধণা প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত জনপ্রিয়তা অর্জন করতে নয় জনগণের সেবা করতেই শামীম গফুরের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ শিবপুর পৌরসভায় মানবিক কার্যক্রমে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছেন শামীম গফুর শিবপুরে মৎস্যজীবী লীগের পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত শিবপুরে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত শিবপুরে গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী কাছিটান খেলা অনুষ্ঠিত শিবপুরে শ্রমিক লীগ নেতার স্মরণে দোয়া মাহফিল জনপ্রিয়তায় ঈর্শ্বানিত হয়ে হত্যা মামলায় ফাসিয়ে দিল ইউপি সদস্যকে
রাবি প্রশাসন ভবন ও ভিসির বাসভবনে তালা দিলেন বিতর্কিত নিয়োগপ্রাপ্তরা

রাবি প্রশাসন ভবন ও ভিসির বাসভবনে তালা দিলেন বিতর্কিত নিয়োগপ্রাপ্তরা

 

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ফাইন্যান্স কমিটির সভা ও সিন্ডিকেট সভা পণ্ড করতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ভবন ও উপাচার্যের বাসভবনে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় বিতর্কিত নিয়োগপ্রাপ্তরা। আজ শনিবার সকাল ৯টায় তাঁরা এই ভবনগুলোতে তালা লাগিয়ে দেন।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বাসভবনে ফাইন্যান্স কমিটির একটি সভা হওয়ার কথা ছিল। এ ছাড়া আগামী ২২ তারিখ বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। এই সভা দুটি যাতে অনুষ্ঠিত হতে না পারে, সে কারণে ভবনগুলোতে তালা লাগিয়েছেন সাবেক উপাচার্যের শেষ কর্মদিবসে অবৈধভাবে নিয়োগপ্রাপ্তরা।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আবদুস সোবাহান তাঁর মেয়াদের শেষ দিন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ১৩৭ জনের একটি বিতর্কিত নিয়োগ দিয়ে যান। শিক্ষা মন্ত্রণালয় সে নিয়োগকে অবৈধ আখ্যা দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে। মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে ১৩৭ জনের যোগদান স্থগিত রেখেছেন বর্তমানে দায়িত্বপ্রাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা।

এ বিষয়ে নিয়োগপ্রাপ্ত আতিকুর রহমান সুমন নামের একজন বলেন, ‘শনিবার ফাইন্যান্স কমিটি ও আগামী ২২ তারিখে সিন্ডিকেট সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। শনিবার যদি ফাইন্যান্স কমিটির সভা হয়, তাহলে আগামী ২২ তারিখে সিন্ডিকেট সভা হবে। আমরা শুনেছি, ওই সিন্ডিকেট সভায় আমাদের নিয়োগ সম্পূর্ণভাবে বাতিলের জন্য সুপারিশ করা হবে। সিন্ডিকেট ও ফাইন্যান্স কমিটির সভা যাতে না হয়, সেজন্য আমরা ভবনগুলোতে তালা লাগিয়েছি।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে দায়িত্বপ্রাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা বলেন, ‘তালা লাগানোর ঘটনাটি তিনি শুনেছি। এ ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে, তা কয়েকদিন থেকেই আমি শুনছিলাম। সে কারণে প্রক্টরের মাধ্যমে নগরীর মতিহার থানায় মৌখিক ও লিখিতভাবে আমরা বিষয়টি জানিয়েছি। এ ছাড়াও রাজশাহীর স্থানীয় রাজনৈতিক নেতারা বিষয়টি অবগত রয়েছেন। আমি প্রশাসনের সবার সঙ্গে আবার কথা বলব, তারপর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

সামাজিক যোগাযোগ এ শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© সকল স্বত্ব www.muktasangbad.com অনলাইন ভার্শন কর্তৃক সংরক্ষিত